Medical Science

প্যারাসিটামল অপরাধ করার প্রবণতা বাড়ায়-দাবি বিশেষজ্ঞদের

সাদিয়া জামান

 সম্প্রতি একটি গবেষণায় উঠে এসেছে যে, এসিটামিনোফেন যা প্যারাসিটামল নামে সর্বাধিক পরিচিত প্রদাহবিরোধী ওষুধ মানুষের মধ্যে নেতিবাচক অনুভূতি তৈরি করে এবং ঝুঁকিপূর্ণ আচরণকে উদ্দীপ্ত করে।

ওহিও স্ট্যাট বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নায়ুবিজ্ঞানী বাল্ডউইন ওয়ে এবং তার সহকর্মীরা ৫০০ শিক্ষার্থীর উপর গবেষণা করে দেখতে পান যে, প্যারাসিটামল গ্রহণকারীদের মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করা প্রবণতা বেশি।

 গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের ২টি দল এ ভাগ করা হয়- একদল প্যারাসিটামল গ্রহণকারী (ডোজঃ ১০০০ মি. গ্রা.) এবং অন্য দল প্ল্যাসেবোস। প্রতিটি দলকে নির্দেশনা দেওয়া হয় বেলুন ফোলানোর মাধ্যমে টাকা উপার্জন করার জন্য। যে যত বড় করে বেলুন ফোলাতে পারবে তার টাকার পরিমাণ তত বাড়বে। তবে খেয়াল রাখতে হবে, কেউ বেলুন ফাটালে তার টাকার পরিমাণ হবে শূন্য।  

প্ল্যাসেবোস এর প্রত্যেকে বেলুন ফোলাতে সক্ষম হয়েছিলেন এবং এই সতর্কতা অবলম্বন করেছিলেন। কিন্তু 

প্যারাসিটামল গ্রহণকারীদের প্রত্যেকে বেলুন বড় করে ফোলাতে গিয়ে ফাটিয়েছিলেন অর্থাৎ তারা নিয়ন্ত্রণের বাইরে ছিলেন।   

বিশেষজ্ঞদের মতে, প্ল্যাসেবোস এর মধ্যে বেলুন ফেটে যাওয়ার দুশ্চিন্তা ছিলো কিন্তু প্যারাসিটামল গ্রহণকারীদের মধ্যে ওষুধের প্রভাবে বেলুন ফেটে যাওয়ার দুশ্চিন্তা ছিলো না বা কম ছিলো যার ফলে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করার প্রবণতা ছিলো খুবই বেশি।  

নিঃসন্দেহে, এ গবেষণা প্যারাসিটামল এর দক্ষতা, প্রভাব এবং স্নায়ুসংক্রান্ত গবেষণার পথকে ভবিষ্যতে আরো উন্মুক্ত করবে বলে জানিয়েছেন ওয়ে এবং সহকর্মীরা। 

সাদিয়া জামান

নিজস্ব প্রতিবেদক

হেড অব ডেইলি সায়েন্স প্রজেক্ট, বায়ো ডেইলি

রেফারেন্সঃ https://www.sciencealert.com/the-most-common-pain-relief-drug-in-the-world-induces-risky-behavior-study-finds 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button